মাথা ব্যাথা কোন রোগের লক্ষণ

মাথা ব্যাথা কোন রোগের লক্ষণ|মাথা ব্যাথা হলে করণীয় কি

মাথা ব্যাথা কোন রোগের লক্ষণ , মাথা ব্যাথা হলে করণীয় কি , মাথা ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম ও মাথা ব্যাথার ঘরোয়া চিকিৎসা ইত্যাদি লিখে অনেকই গুগলে সার্চ দিয়ে থাকে আপনি যদি আমাদের সাইটে এসে থাকে তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন ।

আসসালামু আলাইকুম আশা করি আপনারা সবাই অনেক ভালো আছেন । আপনাদের জন্য আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল নিয়ে আসলাম । আমাদের দৈনন্দিন জীবনে কারো না কারো মাথা ব্যাথা হয়ে থাকে । মাথা ব্যাথা হলে দ্রুত করণীয় কি এই সব বিষয়ে আজকের এই পোস্ট ।

মাথা ব্যাথা কোন রোগের লক্ষণ

মাথা ব্যাথা এক প্রকার ভয়ানক সমস্যা । একজন ব্যক্তিকে ঘায়েল করার করার জন্য শুধু মাথা ব্যাথাই যথেষ্ট । নিয়মিত কারো যদি মাথা ব্যাথা হয় তাহলে তাকে অবশ্যই সেই বিষয়ে সাবধান হতে হবে । এর প্রধান কারণ হলে এই মাথা ব্যাথার কারণে একটি গুরুত্বপূর্ণ রোগ হতে পারে সেটি হলো মাইগ্রেন ।

পৃথিবীর প্রায় সব মানুষেরই মাথা ব্যাথা হয়ে থাকে । আপনি আপনার জীবনে কোন না কোন এক সময় এই সমস্যায় পড়তে পারেন । যখন যার মাথা ব্যাথা হয় তখন তার আর কিছু ভালো লাগে না । ডাক্তার বলে থাকে যে মাথা ব্যাথার পিছনে বিভিন্ন কারণ থাকতে পারে । কিন্তু হ্যাঁ মাথা ব্যাথা নিজেও কিন্তু একটি রোগ ।

তাই আমরা বলি যে আপনার মাথা ব্যাথা হওয়ার আগে আপনি এই সব বিষয় নিয়ে সচেতন হন । মাথা ব্যাথা কথা আসলে যে পুরো মাথাই যে ব্যাথা করছে তা কিন্তু নয় । অনেক ক্ষেত্রে মাথা কিছু অংশ ব্যাথা করে আবার অনেক সময় পুরো মাথা ব্যাথা করে । তাই আমাদের প্রত্যেকের উচিত নিজের মাথা ব্যাথা নিয়ে সচেতন থাকা ।

মাথা ব্যাথার কোন নির্দিষ্ট সংজ্ঞা দেওয়া খুব কঠিন । তবে বলা যায় যে মাথা ব্যাথা এক ধরণের ব্যাথার অনুভূতি শুধু । যা মাথায় কিংবা মাথার চারদিকে ব্যাথা অনুভুতি হয় । এই মাথা ব্যাথা যেহেতু সবারই হয় সেহেতু এই রোগ কোন গুরুত্বপূর্ণ রোগ নয় ।

মাথা ব্যাথা কোন রোগের লক্ষণ এটা বলা খুব কঠিন কারণ পরিক্ষা ছাড়া কিছু বলা যাবে না । কিছু মাথা ব্যাথা আছে যে গুলো ডাক্তার খুব গুরুত্ব দিয়ে বলেছে এগুলো বড় ধরণের রোগ । বিশ্ব হেডেক সোসাইটি এই মাথা ব্যাথাকে প্রধান দুই ভাগে ভাগ করেছে। একটি হলো প্রাইমারি হেডেক ও অন্যটি হলো সেকেন্ডারি হেডেক ।

প্রাইমারি হেডেকঃ পৃথিবীর প্রায় ৯০% লোকের ক্ষেত্রে মাথা ব্যাথা হয়ে থাকে বলে এদেরকে প্রাইমারি হেডেক বলে। এই প্রাইমারি হেডেক গুলো কোন সিরিয়াস কোন রোগ না । 

সেকেন্ডারি হেডেকঃ মানুষের মাথা, ঘাড় কিংবা শরীরের অন্য কোনো অংশের সিরিয়াস কোন রোগ নির্দেশ করেছে বিশ্ব হেডেক সোসাইটি । পুরো মাথার ব্যাথার ১০ শতাংশ ক্ষেত্রে এই রোগ দেখা যায় । প্রথম শতাংশ মাথা ব্যাথা ব্রেন টিউমারের কারণে হয়ে থাকে । 

রোগীর মধ্যে কোনো খারাপ লক্ষণ বা রেড ফ্ল্যাগ সাইন আছে কি না তা যেমন একজন চিকিৎসকের জন্য জানা জরুরি তেমনি মাথা ব্যাথার রোগের কিছু ধারণা রাখা খুবই দরকারি। 

মাথা ব্যাথা কোন রোগের লক্ষণ গুলো হলোঃ-

  • যেকোন মাথা ব্যাথা ৫০ বছর বয়সে বা তারও বেশি বয়সে প্রথম দেখা দেয় ।
  • সময়ের সাথে সাথে মাথা ব্যাথা বাড়তে থাকা ।
  • মাথা ব্যাথা শুরু হওয়ার সাথে সাথে দিনে দিনে ক্রমানুসারে বাড়তে থাকা । 
  • ব্রেন টিউমার রোগীদের মধে এর রকম দেখা যায় ।
  • ব্রেন টিউমার ছাড়াও টীবি মেনিনজাইটীস ,সারকোইডোসিস ও লিস্ফোমা কিংবা অন্য কর্কট রোগ বা মেটাস্টোসিসের মতো রোগ দেখা যায় ।
  • তীব্র মাথা ব্যাথার সঙ্গে জ্বর ,গায়ে ফুসকুড়ি ও প্রচন্ড দুর্বলতা কিংবা ঘাড় শক্ত হয়ে যাওয়া ।
  • মাথা ব্যাথার সঙ্গে আচার-আচারণ ও চলাফেরা কিংবা কথাবার্তায় অসংলগ্নতা হতে শুরু করে মাঝে মাঝে অজ্ঞান হয়ে পড়া ।
  • হৃদরোগ ,উচ্চ রক্তচাপ কিংবা ডায়াবেটিস ও রক্তনালির কোন প্রকার সমস্যা থাকলে এই ধরণের রোগীদের মাথা ব্যাথা হলে স্ট্রোক করে ফেলতে পারে ।
  • মাথায় আঘাতের পর থেকে মাথা ব্যাথা করা।
  • প্রেগন্যান্সি বা প্রেগন্যান্সি কিংবা পরবর্তি সময় মাথা ব্যাথা করতে পারে ।

মাথা ব্যাথা হলে করণীয় কি

মাথা ব্যাথা বেশ একটি যন্ত্রণাদায়ক বিষয় । দিন ভরা মাথা ব্যাথা নিয়ে কাজ করা বেশ একটি কষ্টকরদায়ক । তবে আমরা এমনি কিছু উপায় বলে দিবো যার মাধ্যমে আপনি কয়েক মিনেটেই আপার মাথা ব্যাথা দূর করতে পারবেন ।

মাথা ব্যাথা হলে করণীয় কি
মাথা ব্যাথা হলে করণীয় কি

অতিরিক্ত কাজের চাপে আপনার মাথা ব্যাথা করতে পারে এ জন্য আপনাকে অবশ্যই ঘুমাতে হবে । কারণ অনেক সময় ঘুমের কারণেই মাথা ব্যাথা হয় । কিন্তু হ্যাঁ আপনার জন্য দিনের বেলা ঘুমানো পরো আরো মাথা ব্যাথা বাড়তেই থাকে তাহলে অবশ্যই খুব তাড়াতাড়ি আপনি চিকিৎসকের পরামর্শ নিবেন ।

আপনার যদি হঠ্যাথ করে মাথা ব্যাথা ধরলো আপনি চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই যদি  ঔষধ খাইলে ভালো হওয়ার বিপরিতে আরো মাথা ব্যাথা বাড়তে পারে । তবে হ্যাঁ কিছু মাথা ব্যাথার ঘরোয়া চিকিৎসা আছে সেই সব নিয়ে আলোচনা করবো আমরা ।

মাথা ব্যাথা হলে করণীয় কি এই নিয়ে বহুবছর ধরে কিভাবে মাথা ব্যাথা খুব সহজে দুর করা যায় সেই সব নিয়ে বিভিন্ন প্রকার আকুপ্রেশার পদ্ধতি ব্যবহার করে আসছে মানুষ । আপনি যদি আপনার মাথা ব্যাথার কারণে আপনি আপনার স্বাভাবিক কর্মদক্ষতা হারিয়ে ফেলতেছেন তাহলে আপনি খুব তাড়াতাড়ী ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন । আমাদের কিছু ঘারোয়া পদ্ধতিতে মাথা ব্যাথা খুব সহজে ভালো হয়ে যায় আসুন আর কথা না পারিয়ে সেই বিষয়ে আলোচনা করা যাক ।

মাথা ব্যাথার ঘরোয়া চিকিৎসা

কাজ করার সময় হঠাত করে আপনার মাথা ব্যাথা শুরু হলে আপনি তাতক্ষনিক যে ভাবে আপনার মাথা ব্যথা ভালো করবেন । মনে করেন আপনি আপনার অফিসে বসে কাজ করতেছে হঠাত করে আপনার মাথা ব্যাথা শুরু হলে কিংবা ভ্রমণে যাওয়ার পথে আপনার মাথা ব্যথা শুরু হলে আপনি ঘরোয়া চিকিৎসা করবেন যে ভাবে সেই বিষয় নিয়ে আমরা আজকে আলোচনা করবো ।

মাথা ব্যথার ঘরোয়া চিকিৎসা
মাথা ব্যাথার ঘরোয়া চিকিৎসা

ছোট এই মাথা ব্যাথার ঘরোয়া চিকিৎসা পদ্ধিতে আপনি মাত্র ১ মিনিটে আপনার মাথা ব্যাথা ভালো করতে পারবেন । বাম হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি ও তর্জনির মাঝখানের অংশে অন্য হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি ও তর্জনি দিয়ে চাপ দিন এবং ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ম্যাসাজ করুন ভালো করে ।

এই ভাবে ডান হাতে করুন এই পদ্ধতির কথা বলে গেছেন বিশেষজ্ঞরা । আমি আশা করি এতে মাত্র ১ মিনিটে আপনার মাথা ব্যথা সেরে যাবে। রগের দুইটার পাশে ও ঘাড়ের কাছে যদি খানিক ক্ষণ আঙ্গুলের ডগা দিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করা যায়  তাতেও আপনার আরাম লাগবে আর ক্লান্তি দূর হয়ে যাবে ।

অনেক সময় ক্লান্তির কারণে আমাদের মাথা ব্যাথা করে ফলে আমাদের একটু সুন্দর করে ম্যাসাজ করলে ভালো লাগে । অতিরিক্ত আলোর কারণেও অনেক সময় মাথা ব্যাথা করে । তাই সব সময় কম আলো ব্যবহার করবেন রাতের বেলায় ও দিনে বেলায় আপনি চশমা ব্যবহার করবেন ।

কম্পিউটার স্ক্রিন , ল্যাপটপ বা মোবাইল ফোনের আলোর কারণে অনেক সময় আমাদের মাথা ব্যাথা করে তাই এগুলো ব্যবহারের সময় আমরা ব্ল চশমা ব্যবহার করতে হবে । আঙ্গুলের ডগায় অ্যাসেনশিয়াল অয়েল লাগিয়ে কপালে আর রগে ম্যাসাজ করুন ।

ল্যাভেন্ডার বা পিপারমিন্টের মতো কোন সুগন্ধি ফ্লেভারের তেল দিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করলে মাথার ব্যাথা অনেকটা কমে যায় । খেতে পারেন চা কিংবা কফি । মাথা ব্যাথার জন্য লাল চা ভালো উপকারে আসে ।

ব্যথা যদি খুব বেশি হয় তাহলে আপনি এক টুকরো আপেল চিবুতে পারেন তবে এতে একটু লবণ ছিটিয়ে নিবেন । একপিস আদা চিবুতে পারেন এতে করে মাত্র ৬০ সেকেন্ডে আপনার মাথা ব্যাথা দূর হতে পারে । আদা চিবুতে একটু বাজে লাগলেও এটি ভালো উপকার দেয় ।

মাথা ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম

মাথা ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম অনেক জানতে চান কিংবা কেউ কেউ গুগলে লিখে সার্চ দেন । মাথা ব্যাথা বিভিন্ন কারণে হয়ে থাকে । এই ব্যাথার কারণে কোন কিছু করার বা কাজ করার কোন মনোযোগ দেওয়া সম্ভব হয় না । 

মাথা ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম
মাথা ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম

মাথা ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম ও দাম

  • Anilic 200mg Drug international ltd. price: 8 tk
  • Arain 200mg Opsonin pharma ltd. price :10 tk
  • lograin Tablet 200 mg Ibn-sina pharmaceuticals ltd . price :10.01
  • Migrex Tablet 200 mg Incepta pharmaceuticals ltd. price :10 tk
  • migratol Tablet 200 mg Beacon pharmaceuticals ltd . price :10 tk
  • Minopa Tablet 200 mg Medicon pharmaceuticals ltd . price :7.39 tk
  • mygan Tablet 200 mg chemist laboratories ltd . price :10 tk
  • Namitol Tablet 200 mg ACL limited price :10 tk
  • Tolfi Tablet 200 mg Benham pharmaceuticals ltd . price :9.50
  • Tolmic Tablet 200 mg Beximco pharmaceuticals ltd . price :8.03 tk
Anilic (এনিলিক) 

মাথা ব্যাথা দূর করার জন্য এই ঔষধটি আপনি খেতে পারেন এটি আপনার কোন নিকটস্থ দোকান থেকে কিনে নিতে পারেন । একটি বিষয় সব সময় মনে রাখবেন ঔষধ কিনার সময় সতর্ক থাকবেন । ঔষধ কিনার সময় অবশ্যই ঔষধের ডেট দেখে কিনবেন ।

Arain(আরিন)

মাথা ব্যাথা দূর করার জন্য আপনাদের এই আরিন ট্যাবলেট টি খুবই কার্যকরী ঔষধ । এই ঔষধটি কিনার সময় খুব সতর্ক থাকবেন । আপনার মাথা ব্যাথার উপর নির্ভর করে আপনার আপনার পছন্দের দোকান থেকে ঔষধ কিনবেন ।

মাথা ব্যাথার ঔষধ খাওয়ানোর বিপরীতের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া কিন্তু রয়েছে । তাই এ সম্পর্কে ডাক্তারের সাথে আপনি পরামর্শ করে নিবেন । তাহলে আর আপনার ঔষধ গ্রহনের ফলে কোন পাশ্বপ্রতিক্রিয়া হবে না ।

উপরে উল্লেখিত ঔষধের নামগুলোর যে কোন একটী ঔষধ খেলেই আপনার মাথা ব্যাথা ভালো হবে । কিন্তু হ্যাঁ আপনি যে কোন ঔষধই খান না কেন আপনি আগে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে নিবে ।

পরামর্শ দিয়েছেন_

ড. আলমগীর মোঃ সোয়েব

নাক-কান ও গলা রোগ বিশেষজ্ঞ ও হেড নেক সার্জন 

চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল

আমার প্রিয় বন্ধু আশা করি আমাদের এই মাথা ব্যাথা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করছি সেটি আপনাদের ভালো লাগছে । আপনাদের মাথা ব্যথা হলে আপনারা কি করবেন কিভাবে করবে সেই সব সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করছি । তবু যদি আপনাদের কারো মনে যে কোন বিষয় নিয়ে আর্টিকেল চান তাহলে আমাদের মেসেজ করবেন আমরা দেওয়ার চেষ্টা করবো ।

আমাদের banglatipsbd সাইটে আসার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ । আশা করি আমাদের আর্টিকেলটি আপনাদের অনেক ভালো লাগছে । আপনার সুন্দর একটা মতামত দিন আমাদের সাইট সম্পর্কে । আপনাদের মন চাইলে আপনারা আমাদের ফেসবুক পেজ ফলো দিয়ে রাখতে পারেন আর হ্যাঁ পারলে আমাদের ইউটুব চ্যানেল থেকে ঘুরে আসতে পারেন ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *